শান্তু ভাইয়ের আই ক্লিক বাজার

I Click Bazar
Share This:

আগে কোন জিনিস বিশেষ করে ইলেকট্রনিকস জিনিস কিনলে দোকানদার জিজ্ঞেস করতো, এক নম্বর নিবেন না দুই নম্বর। কিন্তু এখন এই দুই নম্বরেরই যে কত নম্বর বের হয়েছে দোকানদার বেচারা নিজেও বলতে পারে না। বাধ্য হয়ে এখন সব জিনিসকেই ‘একের মাল’ বলে চালিয়ে দেয়ার চল শুরু হয়েছে।

আমার কাছে মনে হয় এখন ইলেকট্রনিকস জিনিস কিনলে প্রতারিত হবার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশী। অনলাইন থেকে কিনলেও শান্তি নাই। বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস থেকে গ্যাজেট কিনতে গেলে মোবাইলের বদলে আলু, পেয়াজ (দাম বেড়ে যাওয়ার কারণে এখন উল্টোটা হবারও চান্স আছে, পেয়াজ অর্ডার করলেন, মোবাইল পাঠায় দিয়ে ধাপ্পা দিলো) পাওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়। বিশাল ক্যাশব্যাকে পানির দরে গ্যাজেট কিনলে রয়েছে অচল, স্টক-লটের রদ্দি মাল পাওয়ার সম্ভাবনা!

সব মিলিয়ে গ্যাজেট কেনা এখন কঠিনতম কাজগুলোর একটি। তবে Hasan Shariful Islam Shantu ভাই I click Bazar এর মাধ্যমে এই কাজটা কিছুটা সহজ করে দিয়েছেন। যেকোন গ্যাজেট দরকার হলে প্রথম কাজ হলো শান্তু ভাইকে ফোন দেয়া, ভাই এইটা লাগবে। উনি দিতে না পারলে দেন অন্য জায়গায় খোজ নেয়া। ভাইয়ের বিশেষত্ব হলো উনি কয়েকদিন পর পর নিজে চলে যান চায়নায় এবং সরাসরি নিজে যাচাই বাছাই করে নিয়ে আসেন সত্যিকারের ‘একের মাল’। ওনার রয়েছে অত্যাধুনিক সব গ্যাজেটের বিপুল কালেকশন। মিরপুর ডিওএইচএসে ওনার অফিস অথবা মোতালেব প্লাজায় ওনার শোরুমে গেলে যুগের চেয়ে এগিয়ে যাওয়া যায় প্রায় ছয়মাস। মাথা ঘুরিয়ে দেয়ার মতো সব টেকনোলজিতে ঠাসা।

গ্যাজেটের জন্য আমার মতো আপনারও হতে পারে শান্তু ভাই আশা ভরসার স্থল। নিশ্চিন্তে তার কাছ থেকে কিনতে পারেন গ্যাজেট। আশা করি ঠকবেন না।

ছবিতে তার কাছ থেকে সদ্য কেনা একটি পাওয়ার ব্যাংক ও একজোড়া কর্ডলেস হেডফোন। আল্লাহ ভাইয়ের ব্যবসায় বারাকাহ দান করুন।

Share This:

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *